শরীয়তপুর-২ আসনে বিজয়ী হয়ে এনামুল হক শামীমের শুকরানা দোয়া মাহফিল

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩:৩৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৮ | আপডেট: ৩:৩৬:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৮
সংগৃহীত

শহীদুল ইসলাম পাইলট, শরীয়তপুর প্রতিনিধি: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে শুকরানা দোয়া মাহফিল করেছেন।

সোমবার (৩১ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় নড়িয়া উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্ত্বরে এই দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ একক সংখ্যাগরিষ্টতা বিজয় অর্জন ও নড়িয়া-সখিপুরের মানুষ এনামুল হক শামীমকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করায় তিনি সর্বস্তরের জনগন ও মহান আল্লাহ তায়ালার প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বরূপ এ শুকরানা দোয়া মহফিল করেছেন।

শোকরানা দোয়া মহফিল এনামুল হক শামীম বলেন, আমাকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করায় নড়িয়া-সখিপুরের সর্বস্তরের মানুষে প্রতি আমি চির কৃতজ্ঞ। নড়িয়া-সখিপুরের মানুষ আমার প্রতি যে ভালোবাসা দেখিয়েছেন তা ভোলার নয়।

তাই আমি আমার জনগণকে সাথে নিয়ে আল্লাহর কাছে শোকর আদায় করছি। তিনি আরও বলেন, আমি নির্বাচনের আগে যে ওয়াদা করেছিলাম তা নির্বাচনের পরে ভুলে যাইনি। আমি আমার ওয়াদা জীবন দিয়ে হলেও পালন করবো।

আমি নড়িয়া- সখিপুরের জনগণকে সাথে নিয়ে এই জনপদকে একটি শান্তির জনপদে রূপান্তরিত করবো। এ সময় নড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান আলী রাঢ়ী, সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন, নড়িয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল ওহাব বেপারী, ভেদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান হুমায়ুন মোল্যা, নড়িয়া পৌরসভার মেয়র শহীদুল ইসলাম বাবু রাড়ী, একাত্তর ফাউন্টেশনের চেয়ারম্যান ডা. খালেদ শওকত, চরভাগা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান শিকদার, ডিঙ্গামানিক ইউপি চেয়ারম্যান ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রচার সম্পাদক আনোয়ার হোসাইন খান সহ নড়িয়া উপজেলার সর্বস্তরের জনগণ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকাল ৮টায় মা বেগম আশ্রাফুনেনেসার কবর জিয়ারত করে সখিপুরের চরভাগার নিজ বাড়ি থেকে নড়িয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন এনামুল হক শামীম। এ সময় পথে পথে নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণ ফুলের মালা গলায় পড়িয়ে শুভেচ্ছা ও স্বাগত জানান। এরপর তিনি শরীয়তপুর-২ আসনে পরপর পাঁচবার আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য কর্ণেল (অবঃ) শওকত আলীর বাড়িতে গিয়ে তার দোয়া নেন। পরে তিনি শুকরানা দোয়া মাহফিলে যোগদান করেন।