সিরিজ জিততে মাশরাফিদের লক্ষ্য ২৪৭

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:২৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০১৮ | আপডেট: ৬:২৬:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০১৮

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে দাপুটে জয়ে ১-০তে এগিয়ে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতে সিরিজ নিশ্চিত করতে চায় টাইগাররা। সেই লক্ষ্যে বেশ ভালোভাবে কাজ সারলেন বোলাররা। শেষটা দুর্দান্ত করে প্রতিপক্ষকে মাত্র ২৪৬ রানে আটকে রাখলেন তারা।

এ ম্যাচে বড় নিয়ামক হতে পারে শিশির। এটিই পার্থক্য গড়ে দিতে পারে দুদলের। তাই বুধবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ফিল্ডিং নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। প্রথমেই তার সিদ্ধান্তকে যৌক্তিক প্রমাণ করেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। শুরুতেই দলকে সাফল্য এনে দেন তিনি। হ্যামিল্টন মাসাকাদজাকে মুশফিকুর রহিমের তালুবন্দি করে ফেরান প্রতিশ্রুতিশীল ও সম্ভাবনাময়ী এ ক্রিকেটার।

দলীয় মাত্র ১৮ রানে প্রথম উইকেট হারিয়ে বেশ চাপে পড়েছিল জিম্বাবুয়ে। সে ধারাবাহিকতায় ৭০ রানে তারা হারায় দুই উইকেট। চট্টগ্রামে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে শুরুর এই ধাক্কা সামলে তৃতীয় উইকেট জুটির দৃঢ়তায় ভালোভাবেই এগিয়ে যায় অতিথি দলটি। একপর্যয়ে মনে হয়েছিল বড় সংগ্রহ গড়তে যাচ্ছে তারা। বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে শেষ পর্যন্ত ২৪৬ রানে থামে সফরকারী দলটির ইনিংস।

আজ বুধবার চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ব্রেন্ডন টেইলর, শন উইলিয়ামস ও সিকান্দার রাজার ব্যাটহাতের দৃঢ়তায় বড় সংগ্রহের আশা জাগিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। শেষ পর্যন্ত তা না পারলেও বাংলাদেশের সামনে একটা চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ দাঁড় করাতে পেরেছে তারা।

দীর্ঘদিন পর দলে ফেরা টেইলর এদিন নেমেই বেশ বিপজ্জনক হয়ে ওঠেন। খেলেন ৭৩ বলে ৭৫ রানের একটি চমৎকার ইনিংস। যাতে নয়টি চারের মার ও একটি ছক্কা রয়েছে।

এরপর ইউলিয়ামস ৪৭ ও সিকান্দার রাজা ৪৯ রানের ইনিংস খেলে দলকে এই সংগ্রহের পথ দেখান।

এর আগে ওপেনার হ্যামিল্টন মাসাকাদজাকে (১৪) সাজঘরে ফিরিয়ে শুরুতেই সাফল্য এনে দিয়েছিলেন পেসার সাইফউদ্দিন। এরপর টেইলর ও জুওয়াও জুটি কিছুটা দৃঢ়তা দেখালেও মেহেদী হাসান মিরাজ এই জুটি ভাঙেন। আশা জাগিয়েও বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি জুওয়াও (২০)।

অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন এদিন বলহাতে বেশ উজ্জ্বল ছিলেন। ৪৫ রানে তিন উইকেট তুলে নেন তিনি। এ ছাড়া মাশরাফি, মুস্তাফিজ, মিরাজ ও মাহমুদউল্লাহ একটি করে উইকেট পান।

এদিনের ম্যাচের বাংলাদেশ একাদশে নেই কোনো পরিবর্তন। প্রথম ম্যাচে অভিষিক্ত ব্যাটসম্যান ফজলে রাব্বিকেও এই ম্যাচের একাদশে রাখা হয়েছে। আগের ম্যাচে তিনি ব্যর্থ হয়েছিলেন।

চোটের কারণে কিছুটা শঙ্কা ছিল পেসার মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়েও। শেষ পর্যন্ত তাঁকেও একাদশে নেওয়া হয়।