সিরিয়ার ইদলিবে আসাদ বাহিনীর হামলা শুরু; নিহত ৬

প্রকাশিত: ২:৫৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৮ | আপডেট: ২:৫৪:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৮

সিরিয়ার ইদলিবে বিদ্রোহীদের দমনে হামলা শুরু করেছে রাশিয়া সমর্থিত আসাদ বাহিনী। সরকার বিরোধীদের নিয়ন্ত্রণ থেকে ইদলিবকে মুক্ত করতে এই হামলা শুরু করে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ সমর্থিত বাহিনী। এতে এখন পর্যন্ত এক শিশুসহ ছয় ব্যক্তি নিহত হয়েছে বলে জানায় আল জাজিরা।

এর আগে গত শুক্রবার ইরান, রাশিয়া ও তুরস্কের মধ্যেকার ত্রিপক্ষীয় বৈঠক থেকে সমঝোতায় পৌঁছাতে ব্যর্থ হয় দেশগুলো। বৈঠকে তুরস্কের অস্ত্রবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে রাশিয়া। এরপরই গতকাল শনিবার থেকে ইদলিব এবং প্বার্শবর্তী হামা প্রদেশে বিমান থেকে বোমা নিক্ষেপ এবং আর্টিলারি গোলাবর্ষণ শুরু করে সিরিয়া ও রাশিয়ার যৌথবাহিনী।

যৌথবাহিনীর এবারের হামলাকে আসাদবিরোধীদের বিপক্ষে সাম্প্রতিক সময়ের সবথেকে বড় হামলা হিসেবে মনে করা হচ্ছে। এছাড়াও আগামী কয়েকদিনে হামলার তীব্রতা ও মাত্রা আরও বৃদ্ধি করা হবে মনে করা হচ্ছে। ইদলিবের দক্ষিণাংশ এবং হামার উত্তরাংশকে লক্ষ্য করে এবারের হামলা পরিচালিত হচ্ছে।

শনিবারের এই হামলায় এখন পর্যন্ত ছয় জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজন শিশু রয়েছে। নিহতদের সবাই বেসামরিক নাগরিক। নিহতদের মধ্যে দুই জন হামার অধিবাসী। এছাড়াও এই হামলায় হামায় দুই শিশুসহ অন্তত পাঁচ ব্যক্তি গুরুতর আহত হয়েছে জানা গেছে।

এদিকে যৌথবাহিনীর হামলার জবাবে সরকার নিয়ন্ত্রিত স্থানগুলোতে রকেট হামলা চালিয়েছে বিদ্রোহীরা। তবে সে রকেট হামলায় কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, সিরিয়ার ইদলিবই এখন একমাত্র প্রদেশ যা বিদ্রোহীদের দখলে আছে। এই প্রদেশটির নিয়ন্ত্রণ নিতে তাই মরিয়া হয়ে আছে বাশারপন্থীরা।

-আল জাজিরা।