সুনামগঞ্জেও শ্রমিক ধর্মঘটে কারনে বাবার কোলে শিশুর মৃতু

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৫০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৮ | আপডেট: ১০:৫০:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৮
ছবিঃ বাংলাদেশ টুডে

জাহাঙ্গীর আলম ভুঁইয়া সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:সুনামগঞ্জেও শ্রমিক ধর্মঘটের কারনে হাসপাতালে নিয়ে যেতে না পারায় বাবার কোলেই মৃত্যু হয়েছে। শ্রমিকদের অবরোধের কারণে নিহত শিশুটির বয়স হয়েছে দুই দিন। সোমবার(২৯,১০,১৮)দুপুরে জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার গণিগঞ্জ বাজার পয়েন্টে এই হ্নদয় বিদায়ক ঘটনা ঘটে।





স্থানীয় এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানাযায়,রবিবার রাতে গণিগঞ্জ গ্রামের মইনুল ইসলামের স্ত্রী সেলিমা বেগম এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। ছেলেটি জন্মের পরেই ঠান্ডা জনিত রোগে গুরুত্ব অসুস্থ হয়ে পড়ে। যার জন্য সোমবার দুপুরে বাধ্য হয়ে নিজ বাড়ি থেকে গণিগঞ্জ বাজারে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে আসলে ডাক্তার দ্রæত তাকে সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাবার পরার্মশ দেন।





এসময় গণিগঞ্জ বাজারে ঠহল দিচ্ছিলেন শ্রমিক ফেডাশেনের নেতারা। অসুস্থ শিশুটির বাবা ব্যক্তিগত ভাবে একটি গাড়ি ম্যানেজ করে সন্তানকে হাসপাতালে নিয়ে আসার চেষ্টা করলে শ্রমিকরা তাকে বাধা দেয়। এর কিছুক্ষণ পরেই বাবার কোলেই মারা যায় শিশুটি।

মইনুল ইসলাম কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। তিনি বলেন,পরিবহন শ্রমিকদের অবরোধের কারণে আমার নবযাতক সন্তান মারা গেছে। আমার সদ্য জন্ম নেওয়া শিশুটির দিকেও তাদের মায়া হল না তারা কোন মানুষ হতে পারে না। হরতাল হলৈও জরুরী রোগী পরিবহন করার সুযোগ দেয়। আর তারা আমার সন্তানটাকে মেরে ফেলল।





গণিগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী নাজিম উদ্দিন,শফিকুল সাজিদুলসহ অনেকেই ক্ষোবের সাথে বলেন,আমরা সকাল থেকে শ্রমিকদের অনুরোধ করেছিলাম শিশুটিকে সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি গাড়ি প্রয়োজন। কিন্তু শ্রমিকরা আমাদের সুযোগ দেয় নি। যে কারণে বাবার কোলে নবযাতককে মৃতুর দিকে ঠেলে দিয়েছে। হাসপাতালে নিয়ে গেলে হয়ত শিশুটিকে বাচাঁনো সম্ভব হত। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।