সুবর্ণচরে ‘ধর্ষণের’ নেতৃত্বে থাকা আ. লীগ নেতা বিএনপি করতো : বিচারপতি মানিক

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১০ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০১৯ | আপডেট: ১২:১০:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০১৯
ছবিঃ সংগৃহিত

সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক দাবি করেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন নোয়াখালীর সুবর্ণচরে ধর্ষণের নেতৃত্ব দেওয়ার অভিযোগ ওঠা আওয়ামী লীগ নেতা বিএনপি করতো।

জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আজ সোমবার ৭ই জানুয়ারি দুপুরে জাগো বাংলা ফাউন্ডেশন আয়োজিত বিভিন্ন শ্রেণিপেশার নাগরিকদের অংশগ্রহণে ‘নির্বাচন-২০১৮: অপরাজনীতির প্রস্থান ও নতুন অধ্যায়ের সূচনা’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এ দাবি করেন।

এই গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, ‘রাজনীতির সম্পর্ক কিন্তু খুবই কম ওই ধর্ষণের ঘটনায় । মহিলা সমিতির দুইজন ইতোমধ্যে নোয়াখালীর সুবর্ণচর ঘুরে এসেছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। ঘটনাটি নেহায়েত ব্যক্তিগত কারণে ঘটেছে।

তিনি (অভিযুক্ত ব্যক্তি) অতীতে বিএনপিতে ছিলেন, নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের অত্যন্ত নিম্নস্তরের নেতা ছিলেন তিনি।

আওয়ামী লীগ থেকে তাকে বহিষ্কারও করা হয়েছে। সবচেয়ে বড় কথা হলো সরকার ওই ঘটনায় ‘আউট অব দ্য ওয়ে’তে পদক্ষেপ নিয়েছেন। ইতোমধ্যে নয় জনকে গ্রেফতার ও রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। আমিও চাই তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি হোক।

উল্লেখ্য, ধর্ষণের সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে সাতজন ব্যাক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।