হঠাৎ সিএমএইচে ভর্তি এরশাদ

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৪৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৯ | আপডেট: ৮:৪৯:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৯
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় নেতা হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ। ফাইল ফটো

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এখন সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি হয়েছেন। সেখান থেকেই পার্টির দাফতরিক কাজ করছেন তিনি।

পার্টির একাধিক সূত্র বলছে, পার্টির চেয়ারম্যানের শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ। তিনি উঠে দাঁড়াতে পারছেন না। তাই সম্প্রতি সিএমএইচে যান এরশাদ।

সদ্য শেষ হওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে গত ১০ ডিসেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যান ‘অসুস্থ’ এরশাদ। কয়েক দফা ফেরার তারিখ পরিবর্তন করে দেশে আসেন ২৬ ডিসেম্বর রাতে।

পরের দিন বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কে সংবাদ সম্মেলন করে ঢাকা-১৭ আসন থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দেন সংসদের বিরোধী দলনেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

এর মাঝেই ঘোষণা দেন তার অবর্তমানে পার্টির চেয়ারম্যান হবেন বর্তমানে কো-চেয়ারম্যান ও তার ছোটভাই জিএম কাদের। যদিও তার এ সিদ্ধান্ত নিয়ে পার্টির ভেতরে আলোচনা-সমালোচনা রয়েছে।

দলের একাংশের নেতারা চাইছেন, এরশাদের অবর্তমানে চেয়ারম্যান হন তার স্ত্রী রওশন এরশাদ।

এই ‘শোরগোলে’র মধ্যেই হঠাৎ খবর এলো এরশাদ সিএমইচে। সিঙ্গাপুর থেকে ফেরার পর কয়েকদিন বাসায় থেকে চলতি বছরের ৫ জানুয়ারি ভর্তি হন সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে।

বর্তমানে তিনি সেখানেই অবস্থান করছেন। হাসপাতালে থাকলেও এরশাদ পার্টির সব ধরনের কার্যক্রম দেখভাল করছেন বলে নিশ্চিত করেছে দলীয় সূত্র।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে পার্টির চেয়ারম্যানের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী বলেন, স্যারের কোনো সমস্যা নেই। নিয়মিত চেকআপের জন্য সিএমএইচে আছেন। সেখান থেকেই পার্টির দাফতরিক কাজ করছেন।

‘চেয়ারম্যান স্যার যখন যাকে (দলের নেতা) প্রয়োজন সিএমএইচে ডেকে নিচ্ছেন। সাংগঠনিক বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। সেখানে তার সঙ্গে কথা বলছেন। স্যারের তেমন কোনো সমস্যা নেই,’ বলেন তিনি।