হাসপাতালে ভর্তি পাকিস্তানের আরেক কিংবদন্তি ক্রিকেটার

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৪১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২০ | আপডেট: ৯:৪১:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২০

করোনা-আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার জাফর সরফরাজ। ৫০ বছরের প্রাক্তন এই ক্রিকেটার গত তিন দিন ধরে পেশোয়ারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল তাঁকে।

এবার করোনায় আক্রান্তের খবর পাওয়া গেল পাকিস্তানের আরেক ক্রিকেটারের। তার নামও সরফরাজ। একজন সরফরাজ নেওয়াজ, অন্যজন জাফর সরফরাজ। পরের জন খুব বেশি পরিচিত ছিলেন না। পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেট খেললেও জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পাননি। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেছেন তিনি।

অন্যজন বিশ্ব ছিলেন বিশ্ব ক্রিকেটেই এক বিরল প্রতিভা। সরফরাজ নওয়াজ। একসময়ের দুনিয়া কাঁপানো পেসার। ইমরান খানের সঙ্গে ছিল তার দ্বৈরথ। জুটি বেধে খেলেছিলেন দীর্ঘদিন। ওয়াসিম আকরাম আর ওয়াকার ইউনুস যেমন।

সেই সরফরাজ নেওয়াজ গুরুতর অসুস্থ হয়ে ভর্তি হয়েছেন লন্ডনের একটি হাসপাতালে। তবে তিনি করোনাভইরাসে আক্রান্ত নন। মূলতঃ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে তাকে।

পাকিস্তানের সিনিয়র ক্রীড়া সাংবাদিক মির্জা ইকবাল বেগ টুইটারে ৭০ বছর বয়সী সরফরাজ নওয়াজের হাসপাতালে ভর্তির একটি ছবি টুইটারে পোস্ট করে তার অসুস্থতার খবর জানান।

মির্জা ইকবাল বেগ টুইটারে লেখেন, ‘পাকিস্তানের সাবেক ফাস্ট বোলার সরফরাজ নওয়াজ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে লন্ডনের একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ৭০ বছর বয়সী সরফরাজ ৫৫টি টেস্ট খেলেছেন এবং ১৭৭ উইকেট সংগ্রহ করেন। একই সঙ্গে খেলেছেন ৫৩টি ওয়ানডে এবং নিয়েছেন ৬৩টি উইকেট। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তিনি নিয়েছেন ১০০৫টি উইকেট।

টুইটার ব্যবহারকারী পাকিস্তানি ক্রিকেট সমর্থকরা সরফরাজ নওয়াজের জন্য প্রার্থনা করছেন, তাদের হিরো যেন দ্রুত সেরে ওঠেন। সরফরাজ মেলবোর্ন হিরো হিসেবেই ক্রিকেট ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি পরিচিত। কারণ, ১৯৭৯ সালে মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৮৬ রান দিয়ে ৯ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি।